চা-কফি ও কফি মেশিনের পরিবর্তে ৩ ট্রাক বালু প্রেরণ

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ চা-কফি ও কফি মেশিনের পরিবর্তে ৩ ট্রাক ভর্তি ২৪ হাজার কেজি বালু প্রেরণ করে রোজ ক্যাফে কোম্পানির সাথে প্রতারণা করেছেন হবিগঞ্জের এক ডিলার, এমন অভিযোগ ওঠেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে হরমুজ আলী নামে ওই ডিলারকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুরে বালুর কার্টন ভর্তি গাড়িগুলো জব্দ করে পুলিশ। এ সময় রোজ ক্যাফে বাংলাদেশ লিমিটেডের অপারেশন ডিরেক্টর রফিকুল ইসলাম খানের দায়ের করা মামলায় ওই ডিলারকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌধুরী বাজার পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) উত্তম কুমার রায় জানান, দীর্ঘদিন ধরে হবিগঞ্জ শহরে হরমুজ আলীর মালিকানাধীন ‘আদি খাঁজা বেনু’ নামে প্রতিষ্ঠান রোজ ক্যাফে কোম্পানির পরিবেশক হিসেবে সিলেট, হবিগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে নিয়োজিত ছিল। সম্প্রতি ডিলার এবং কোম্পানির মধ্যে মতভেদ দেখা দিলে ‘আদি খাঁজা বেনু’র ডিলারশিপ বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়।

তিনি আরো জানান, জামানতের টাকা ফেরত পেয়ে গত ৯ মার্চ কোম্পানির মালামাল গাড়িতে করে ফেরত পাঠান ডিলার হরমুজ আলী। এতে ১২ হাজার প্যাকেট চা, ১২ হাজার প্যাকেট কফি এবং ৩৪টি কফির মেশিন থাকার কথা ছিল। কোম্পানির হিসাবমতে যার বর্তমান বাজার মূল্য ১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। কিন্তু গাড়িতে এসব চা-কফির প্যাকেট কিংবা কফির মেশিন নয়, পাওয়া যায় ২৪ হাজার কেজি বালু। এছাড়া অনেকগুলো খালি কার্টনও পাওয়া যায়। পরে রোজ ক্যাফে কোম্পানি এগুলো হবিগঞ্জ সদর মডেল থানায় পাঠিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন।

হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ সহিদুর রহমান জানান, প্রতারণার অভিযোগে ৯ মার্চ কোম্পানির অপারেশন ডিরেক্টর রফিকুল ইসলাম খান বাদী হয়ে হরমুজ আলী এবং তার ছেলে তাজুল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ হরমুজ আলীকে রাতে গ্রেফতার করলেও তার ছেলে পলাতক রয়েছেন।

মামলার বাদী রফিকুল ইসলাম জানান, এত বড় প্রতারণা এর আগে কোনো কোম্পানির সাথে হয়েছে বলে আমার জানা নেই। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবি করেন তিনি।