চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন পইলের সাব

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন পইলের সাব

সৈয়দ আহমদুল হক পইলের সাবের জানাজা ও দাফন সম্পূর্ণ। হাজারো মানুষের অশ্রুসিক্ত নয়নে চিরবিদায় করা হলো সকলের প্রিয় নেতাকে। 

জানাজার কথা ছিলো আজ বিকাল ৩ ঘটিকায় একটু বিলম্ব হওয়ার পর সাড়ে ৩ ঘটিকার  দিকে জানাজা নামাজ সম্পূর্ণ হয়।

জানাযা নামাজের দৃশ্য।

নামাজ পড়ান পইলের সাবের ছোট ভাই আমেরিকা প্রবাসি মাওলানা সৈয়দ সাজিদুল হক পীর সাব হুজুর পইল দরবার শরীফ। নামাজের পর তিনিই মুনাজাত করেন।

মুনাজাত করার দৃশ্য।

পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে সাবেক চার বারের উপজেলা ও ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ আহমদুল হককে।

পারিবারিক কবরস্থানে শায়িত পইলের সাব।

এর আগে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন তিনি।

সৈয়দ আহমদুল হক দুই ছেলে ও এক কন্যা সন্তান রেখে যান।  বড় ছেলে সৈয়দ এজাজুল হক লন্ডন প্রবাসী এবং ছোট ছেলে সৈয়দ মঈনুল হক আরিফ পইল ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান ও একমাত্র মেয়ে বিবাহিত এবং গৃহিনী।

পইলের সাব শুধু জনপ্রতিনিধিই ছিলেন না, তিনি শিক্ষাজীবন শেষ করে শিক্ষকতা করেছেন কিছু দিন। সরকারি চাকরিও করেছেন। সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) জেলা কমিটির সভাপতি ছিলেন দীর্ঘদিন। এছাড়াও একাধারে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন।

জানাযার নামাজে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এডভোকেট মোঃ আবু জাহির, সংসদ সদস্য আব্দুল মজিদ খান, সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শাহ নওয়াজ মিলাদ, সাবেক বিচারপতি সৈয়দ দস্তগীর হোসেন, চুনারুঘাট আওয়ামীলীগের  সভাপতি সাবেক পিপি আকবর হোসেন জিতু, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা, কেন্দ্রীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ডাঃ সাখাওয়াত হাসান জীবন, সমবায় বিষয়ক সম্পাদক জি কে গউছ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোতাচ্ছিরুল ইসলামসহ জেলার সকল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।