চুনারুঘাটে অবৈধ বালু উত্তোলন ও সরকারী কাজে বাধা দেয়ায় ইউপি সদস্য আটক

চুনারুঘাটে অবৈধ বালু উত্তোলন ও সরকারী কাজে বাধা দেয়ায় ইউপি সদস্য আটক
আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শফিকুর রহমান শাফু

সরকারী কাজে বাধা ও ভুমি অফিসের লোকজনকে মারপিঠ করে বালু পাচার করায় চুনারূঘাট উপজেলার আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মেম্বার শফিকুর রহমান শাফুকে আটক করেছে পুলিশ। আজ রোববার (৩ মে) বিকালে আটক করা হয় তাকে।

পুলিশ জানায়, “অবৈধ পন্থায় আহম্মদাবাদ ইউনিয়নের ছয়শ্রী গ্রাম দিয়ে প্রবাহিত সুতাং নদী থেকে সিলিকা উত্তোলন করে শাফু মেম্বারসহ অন্যান্য কিছু লোক। সেই খবর পেয়ে উপজেলার শিরিকান্দি ভুমি অফিসের অফিস সহায়ক ফারুক আহম্মদ, বিশ গাও ভুমি অফিসের অফিস সহায়ক হুসাইন আহম্মদ ও জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সাধারন শাখার অফিস সহায়ক ছায়েদ আলী বালূ উত্তোলনে বাধা প্রদান করলে এবং ছবি উঠানোর চেষ্টা শাফু মেম্বার ও তার লোকেরা তাদেরকে পিঠিয়ে আহত করে।

রোববার সকাল ৯ টার সময় ঘটনাটি ঘটেছে আহম্মদাবাদ ইউপির ছয়শ্রী গ্রামে। এ ঘটনায় ইউপি সদস্য শফিকুর রহমান সাফু, ছয়শ্রী গ্রামের মোশাহিদ, রুবেল মিয়া, আলামিন, সুহেল ও শাহী মিয়ার নামে চুনারুঘাটে সহকারী কমিশনার ( ভুমি) বরাবরে অভিযোগ দায়ের করা হয়। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে শাফু মেম্বারকে আটক করে পুলিশ।

এ বিষয়ে আহত ফারুক আহম্মদ বলেন, “ছয়শ্রী গ্রাম দিয়ে প্রবাহিত সুতাং নদী থেকে সিলিকা বালু চুরির খবর পেয়ে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের অফিস সহায়ক ছায়েদ আলী ছবি তুলতে গেলে মেম্বার তার লো কদের দিয়ে পিটিয়ে আহত করে।”