২৮শে আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
১২ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
রাত ৯:০৬

জনপ্রিয় ৫ সংবাদ

আরো কিছু সংবাদ

চুনারুঘাটে মাদক সন্ত্রাসীদের কাছে জিম্মি মুক্তিযোদ্ধা পরিবার

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে মাদক সন্ত্রাসীদের অত্যাচারে নিজের ভিটেমাটি ফেলে অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছে একটি নিরীহ মুক্তিযোদ্ধা পরিবার।

ভিটেমাটিতে আসলেই তাদের মারধোর ও গাছ-গাছালি কেটে নিয়ে যায় একাধিক মামলার আসামী ভূমিদস্যু সন্ত্রাসী রিপন ও আমির আলী গ্রুপের লোকজন।

এনিয়ে মামলা করেও কোন প্রতিকার পাচ্ছে না বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি। এর প্রতিকার চেয়ে এবার জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করেছে পরিবারটি।

উপজেলার পূর্ব পাকুড়িয়া গ্রামের প্রয়াত আব্দুর রহিমের ছেলে ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মান্নানের ভাই আব্দুল হামিদ আদালতের মাধ্যমে নিলামে ১২ শতক বাড়ীসহ ৩৭ শতক ভূমি ক্রয় করেন।

পরবর্তীতে তারা আরো ২৭ শতক জমি ক্রয় করেন এবং তাদের পৈতৃক সম্পত্তিসহ ১ একর ৩৫ শতক জমিতে ঘর-বাড়ি তৈরী করে এবং গাছ-গাছালি লাগিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছেন।

৩ ভাই বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান, আব্দুল হামিদ ও আব্দুল রউফ তাদের পৈতৃক সম্পতিতে বসবাস করাবস্থায় একই গ্রামের মিজানুর রহমান রিপন ও আমীর আলী গংরা তাদের সম্পত্তি দখলের জন্য হুমকি দিয়ে আসছে। বিভিন্ন সময়ে তাদের ফলায়া নানা প্রজাতির গাছ-গাছালি কেটে নিয়ে যাচ্ছে এবং বিভিন্নভাবে তাদেও ক্ষতিগ্রস্থ করছে। উক্ত সম্পত্তি থেকে তাদের উচ্ছেদে তাদের উপর বিভিন্ন সময়ে হামলাও চালায়।

এ নিয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি। কিন্তু তাতেও থেমে নেই মাদক সম্রাট রিপন ও ভূমিদস্যু আমির আলী বাহিনীর সন্ত্রাসী কার্যক্রম।

এ অবস্থায় আঃ হামিদ তার নিজের বাড়ি-ঘর ফেলে অন্যত্র পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। আমির আলী ও মাদক সম্রাট রিপন সহ তাদের সহযোগিদের বিরুদ্ধে দেশের চুনারুঘাট থানাসহ দেশের বিভিন্ন থানায় মাদক, নারী নির্যাতনসহ একাধিক মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

এছাড়া এ বিষয়ে স্থানীয় মিরাশী ইউনিয়নের সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানগন সালিশ বৈঠক করে মীমাংসা করে দিলেও তারা না মেনে বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে উচ্ছেদে নানা ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছে। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে যে কোন সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছেন এলাকাবাসী।

মাদক সম্রাট, সন্ত্রাসী ও ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষা পেতে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।