জজকোর্টেও সুশান্ত দাস গুপ্তের জামিন নামঞ্জুর

দৈনিক আমার হবিগঞ্জের সম্পাদক ও প্রকাশক প্রকৌশলী সুশান্ত দাশ গুপ্ত
দৈনিক আমার হবিগঞ্জের সম্পাদক ও প্রকাশক প্রকৌশলী সুশান্ত দাশ গুপ্ত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার হওয়া দৈনিক আমার হবিগঞ্জ পত্রিকার সম্পাদক প্রকাশক ও আমার এমপি ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা সুশান্ত দাস গুপ্তের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেছেন জেলা ও দায়রা জজ।

মঙ্গলবার বেলা ১২টায় বাদী ও বিবাদী পক্ষের শুনানি শেষে জেলা ও দায়রা জজ আমজাদ হোসেন এ আদেশ দেন।

হবিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পদক সায়েদুজ্জামান জাহির গত ২০ মে দিবাগত রাত ১২টা ৫ মিনিটে হবিগঞ্জ থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আমার হবিগঞ্জের সম্পাদক সুশান্ত দাশ গুপ্ত, নির্বাহী সম্পাদক নুরুজ্জামান মানিক, বার্তা সম্পাদক রায়হান উদ্দিন সুমন ও প্রতিবেদক তারেক হাবিবকে বিবাদী করে মামলা দায়ের করেন।

২১ মে ভোর ছয়টায় হবিগঞ্জ থানার একদল পুলিশ সুশান্ত দাশ গুপ্তকে শহরের চিড়াকান্দি এলাকায় দৈনিক আমার হবিগঞ্জ অফিস থেকে গ্রেপ্তার করে।

বাকি সাংবাদিকরা গ্রেপ্তার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এর আগে গত ২৭ মে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সুশান্ত দাশের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর হয়। মঙ্গলবার বাদী পক্ষে ছিলেন পিপি সিরাজুল হক চৌধুরী, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট নিলাদ্রী শেখর পুরকায়স্থসহ প্রায় ২০ আইনজীবী।

অপরদিকে বিবাদী পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মোহিত আহমেদ চৌধুরী, আব্দুল হাই ও সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়া।

বিবাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মোহিত আহমেদ চৌধুরী জানান, এ আদেশের বিরুদ্ধে তারা উচ্চ আদালতে আবেদন করবেন।

মামলার বাদী হবিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সায়েদুজ্জামান জাহির আরজিতে উল্লেখ করেন যে, বাদি পক্ষ দৈনিক আমার হবিগঞ্জে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাংসদ আবু জাহিরকে জড়িয়ে অসত্য সংবাদ প্রকাশ করেছেন। সাংসদ আবু জাহির প্রেস ক্লাবের আজীবন সদস্য।

এতে প্রেস ক্লাবের সম্মান ক্ষুণ্ন হওযায় তিনি মামলাটি দায়ের করেছেন। সুশান্তের পত্রিকার ডিক্লারেশন বাতিলের দাবিতে প্রেস ক্লাবের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসকের বরাবরে স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে।