দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই

Alhajj-GK-Gous

বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক, হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়য় যুগ্ম আহ্বায়ক ও টানা ৩ বারের নির্বাচিত হবিগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মেয়র আলহাজ্ব জি কে গউছ বলেছেন-দেশের গণতন্ত্র ও মানুষের ভোটাধিকার ফিরিয়ে আনতে আন্দোলনের বিকল্প নেই। ইতিহাস প্রমাণ করে, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের বিজয় সুনিশ্চিত। কিন্তু আওয়ামীলীগ ইতিহাস থেকে শিক্ষা না নিয়ে দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করেছে।

অতি শীঘ্রই গণআন্দোলনের মুখে আওয়ামীলীগ সরকারের পতন নিশ্চিত করা হবে। আপোষহীন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা হবে।তিনি গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ১১টায় শায়েস্তানগরস্থ বিএনপির কার্যালয়ে হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির এক আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।

সভায় জি কে গউছ আরও বলেন- ক্ষমতা হারানোর ভয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন মামলায় দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে সাজা দেয়া হয়েছে। সারাদেশে হাজার হাজার বিএনপি নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। পুলিশ পাহারায় একদল শহরে মিছিল করছে, আরেকদলকে রাস্তায় নামতে দেয়া হচ্ছে না। এই পুলিশ প্রশাসনের উপর নির্ভর করেই আওয়ামীলীগ দেশের ক্ষমতা আকড়ে ধরে আছে, মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছে, গণতন্ত্র হরণ করেছে। আওয়ামীলীগের এই অপকর্মের জবাব দেশবাসীর কাছে দিতে হবে। পৃৃথিবীর কোন স্বৈরশাসকই আজীবন ক্ষমতায় থাকতে পারেনি, আওয়ামীলীগও পারবে না। তাদের পতন হবেই।

হবিগঞ্জ পৌর বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা রফিকের সভাপতিত্বে ও বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল ইসলাম নানুর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন-জেলা বিএনপির সদস্য আব্দুল হান্নান ফরিদ, জেলা কৃষকদলের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এস এম বজলুর রহমান, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক তাজুল ইসলাম চৌধুরী ফরিদ, জেলা কৃষকদলের আহ্বায়ক মাহবুবুর রহমান আউয়াল, জেলা বিএনপি নেতা নুরুল আনাম খান টিপু, এডভোকেট কামরুল হাসান চৌধুরী, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ক্বারী কবির হোসেন, তোফায়েল ইসলাম কামাল প্রমুখ।

আরও পড়ুন:

আবরার হত্যার প্রতিবাদে হবিগঞ্জে বিএনপির সমাবেশ