নবীগঞ্জে টাকার জন্য বাবা-মাকে প্রহার, সন্তানের কারাদন্ড

জাবেদ ইকবাল তালুকদারঃ টাকার জন্য বাবা, মা, ভাই, বোনকে প্রহার ও ঘরের জিনিসপত্র, সম্পদ বিক্রির অপরাধে নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা ইউনিয়নের বড়চর গ্রামের আমির উল্যার পুত্র ফারুককে (দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৩৫৫ ধারা) অনুযায়ী ১৪ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে।

সুত্রে জানা যায়, টাকার জন্য বাবা মা ভাই বোন কে প্রায়শই প্রহার করতো দন্ডাদেশপ্রাপ্ত ফারুক। ঘরের জিনিসপত্র, সম্পদ বিক্রি সহ নানান অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।

নবীগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় কয়েকবার বিষয়টি মীমাংসা করার চেষ্টা হয়েছে। কিন্তু মিমাংসার পরও সে তার মা-বাবাকে নির্যাতন করত। আবার একইরকম দুই দিন ধরে বাবা মা কে মেরে ঘরের বাইরে রেখেছে।

পরে তার বাবা আমির উল্যা নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরারবর অভিযোগ দিলে অভিযোগের ভিত্তিতে বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য গতকাল, মঙ্গলবার রাতে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইজাজুর রহমান ও একদল পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে যান। সেখানে তাদের উপস্থিতিতিতেই মারতে উদ্যত হয়। এরপর আবার বাবা মা কে প্রহার, অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।

অবশেষে ইউএনও শেখ মহি উদ্দিন মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে মোঃ ফারুককে কৃত অপরাধে (দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৩৫৫ ধারা) ১৪ মাস বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেন।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় প্রসিকিউশন সহায়তা প্রদান করার জন্য নবীগঞ্জ থানা পুলিশ কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন।