নবীগঞ্জ উপজেলায় ভুয়া সিআইডি আটক

নবীগঞ্জ উপজেলায় ভুয়া সিআইডি আটক
ভুয়া সিআইডি শোভন মাহমুদ।

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার ইনাতগঞ্জ বাজার থেকে শোভন মাহমুদ (৩০) নামে ভুয়া সিআইডি আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে ইনাতগঞ্জ বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়।

শোভন মাহমুদ (৩০) রংপুর জেলার কোতয়ালী থানার পশ্চিম বাবুখা গ্রামের মৃত আব্দুল আলীর পুত্র।

পুলিশ জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুরে শোভন মাহমুদ নামে ওই প্রতারক ইনাতগঞ্জ বাজার মা
ফার্মেসীতে এসে ফার্মেসীর মালিক অনিক রায়ের কাছে একপাতা রিভোট্রিল ট্যাবলেট চায়। ফার্মেসীর মালিক প্রেসক্রিপশন চাইলে সে বলে দিতেছি।

এ সময় অনিক ট্যাবলেট বের করলে শোভন বলে সে সিআইডির সাব ইনন্সপেক্টর। প্রেসক্রিপশন ছাড়া ঔষধ বিক্রির অপরাধে তিনি ফার্মেসীর মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

পরে অনিক দুই হাজার টাকা দেন। টাকা দেবার পর অনিকের সন্দেহ হলে এলাকার লোকজনের সহযোগিতায় তাকে আটক করেন।

প্রতারক শোভন জানায়, সে গত বৃহস্পতিবার হবিগঞ্জ জেলা কারাগার থেকে বের হয়েছে। তার কাছে কোন টাকা না থাকায় ভুয়া সিআইডি সেজে এ কাজ সে করেছে। সে হবিগঞ্জ শহরের একটি হোটেলে রুম নিয়ে বসবাস করছে।

খবর পেয়ে ইনাতগঞ্জ ফাঁড়ির একদল পুলিশ ঘটনা স্থলে উপস্থিত হয়ে তাকে পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে যান।

এ ব্যাপারে ইনাতগঞ্জ পুলিশ ফাড়ির এ.এস.আই আব্দুস সামাদ আজাদ জানান, গত প্রায় এক মাস আগে সে বাহুবল বাজারে সেনাবাহিনীর লোক পরিচয় দিয়ে প্রতারনাকালে স্থানীয় জনসাধারন তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। জেল থেকে বের হয়ে আবারও সে প্রতারনা চালিয়ে যাচ্ছে।

ফার্মেসীর মালিক অনিক রায় জানান, সে সিআইডি পরিচয় লোক বলে পরিচয় দেয়। প্রথমে আমি বুজতে পারিনি। পরে এলাবাসীর সহযোগিতায় তাকে আটক করি।

ইনাতগঞ্জ পুলিশ পরিদর্শক শামছুদ্দিন খাঁন বলেন, শোভন মাহমুদ ভুয়া সিআইডি সেজে ইনাতগঞ্জ বাজারের মা ফর্মেসীতে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। এ সময় এলাকাবাসী তাকে আটক করেন। প্রকৃতপক্ষে সে সিআইডি নয়। বর্তমানে সে পুলিশ হেফাজতে রয়েছে।