ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর নামফলক ভাংচুর

হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর নামফলক ভাংচুর করেছে দুবৃত্তরা। নবীগঞ্জ উপজেলার ৪নং দীঘলবাক ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের রগু দাউদপুর গ্রামে হবিগঞ্জ জেলা পরিষদের অর্থায়নে সুন্দর মিয়ার বাড়ি থেকে কাপ্তান মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত ইটসলিং কাজ সম্পন্ন হয়। কাজ শেষ হওয়ার পর রাস্তায় নামফলক বসানো উদ্যোগ নেওয়া হয়।

গত ১৭ অক্টোবর গ্রামের মুরুব্বিয়ান এবং স্থানীয় ওয়ার্ড মেম্বার ফকরুল ইসলাম জুয়েল জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর নামে নামফলক বসাতে গেলে তাতে বাধা প্রদান করেন একই গ্রামের মৃত আয়াত উল্লার পুত্র রমজান উল্লা গংরা। এসময় এলাকাবাসীর সর্বসম্মতিক্রমে স্থান নির্ধারন করে মুশফিক হুসেন চৌধুরীর নামে নামফলক বসানো হয়। ঐদিন রাতেই দুর্বৃত্তরা আধারে ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর নামফলক ভাংচুর করেছে।

এব্যাপারে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরীর যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, প্রতিশ্রুতির অংশ ও চলমান উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় বাস্তবায়নে উন্নয়ন কাজের নামফলক লাগানো হয়। আমার জনপ্রিয়তায় ঈর্ষানীত হয়ে উন্নয়ন বিনষ্টকারী ও দুর্নীতিবাজ কুচক্রিমহল এলাকার উন্নয়নে বাধা দান করছে। এরই ধারাবাহিকতায় তারা রাতের অন্ধকারে নামফলকটি ভাংচুর করে। হবিগঞ্জ জেলা ও নবীগঞ্জ বাহুবলে অসংখ্য উন্নয়নের কাজের নামফলক বসানো হয়েছে। আজ পর্যন্ত নামফলক ভাংচুর মত দুঃসাহস কেউ করেনি।

এব্যাপারে নবীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ সোহেল রানার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ভাংচুর এর ঘটনার অভিযোগ পেয়েছি, এব্যাপারে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।