ফ্রান্সে রাসূল (সা:) এর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে হবিগঞ্জ ছাত্রসেনার বিক্ষোভ

ফ্রান্সে রাসূল (সা:) এর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে হবিগঞ্জ ছাত্রসেনার বিক্ষোভ
ফ্রান্সের বিতর্কিত পত্রিকা শার্লি এব্দতে রাসূল (দ:)-কে নিয়ে ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ এবং সুইডেনের দক্ষিণাঞ্চলীয় মালমো শহরে উগ্রপন্থী খ্রিষ্টান কর্তৃক পবিত্র কুরআন শরীফে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রসেনার বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ফ্রান্সে রাসূল (সা:) এর ব্যঙ্গচিত্রের প্রতিবাদে হবিগঞ্জ ছাত্রসেনার বিক্ষোভ
বাদ জোহর জেলা ছাত্রসেনার অস্থায়ী কার্যালয় থেকে এই বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে শহরের বিভিন্ন স্থান প্রদর্শন করে শায়েস্তানগর ট্রাফিক পয়েন্ট এলাকায় মানববন্ধনের মাধ্যমে সমাপ্ত হয়।
বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা, হবিগঞ্জ জেলার সংগ্রামী সভাপতি শাহজাদা সৈয়দ মোহাম্মদ আলী বশনীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক এম.এ. কাদিরের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন হবিগঞ্জ জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের সভাপতি পীরে তরিকত মাওলানা শাহ জালাল আহমদ আখঞ্জি।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের সহ-সভাপতি জনাব এমডি মুহিত, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা শহিদুল ইসলাম সাহেব, হবিগঞ্জ জেলা ইসলামী ফ্রন্টের সহ-সভাপতি মাওলানা আবুল খায়ের শানু, মাওলানা সাইফুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম বিএসসি, অর্থ সম্পাদক মুফতি খাইরুদ্দিন,সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ অাব্দুল ওয়াদুদ, হবিগঞ্জ জেলা যুবসেনা সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব, সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুল কাদের বিপ্লবী,ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সংগ্রামী সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা কাউসার আহমেদ রুবেল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক ছাত্রনেতা শাহ আলম, ছাত্রনেতা মইনুল ইসলাম।
অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন হবিগঞ্জ জেলা ছাত্রসেনা সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল আউয়াল সুমন, মুহাম্মদ রহমত আলী, নাহিদুল ইসলাম, হানিফ আহমেদ সজীব, সদর উপজেলা ছাত্রসেনা সভাপতি মুহিবুর রহমান রাজন, পৌর ছাত্রসেনা সভাপতি গোলাম শাফিউল আলম মাহিন, রিদওয়ান আহমেদ খান, ইমরান হোসেন, সাইফুল ইসলাম হামজা, আমির হামজা মামুনসহ প্রমুখ।
এসময় বক্তারা উক্ত ঘটনা দুটির তীব্র নিন্দা এবং প্রতিবাদ জানিয়ে জাতিসংঘের কাছে এ ঘটনা গুলোর বিচার দাবি করেন। অন্যথায় দেশব্যাপী কঠোর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন। পরিশেষে সারাবিশ্বে নির্যাতিত মুসলমাদের উপর আল্লাহর রহমত কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করা হয়।