বঙ্গবন্ধু বিপিএলে কে কোন দলে, এক নজরে দেখে নিন

Bangabandhu-Bpl

বঙ্গবন্ধু বিপিএলের প্লেয়ার্স ড্রাফটের তৃতীয় ও চতুর্থ রাউন্ডেও দল পেলেন না বাংলাদেশ ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে হাসান মাহমুদ ও মেহেদী হাসানের মতো তরুণরা এরই মধ্যে দল পেয়ে গেছেন।

এই দুই রাউন্ড শেষে দল পেলেন যারা :  আরাফাত সানি ও জহুরুল ইসলাম অমিকে নিয়েছে রংপুর। হাসান মাহমুদ ও মেহেদী হাসানকে নিয়েছে ঢাকা প্লাটুন। সিলেটে সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল ইসলাম অপু ও সোহাগ গাজী। চট্টগ্রামে জায়গা পেয়েছেন নাসির হোসেন ও রুবেল হোসেন। ফরহাদ রেজা ও আবু জায়েদ রাহিকে দলে নিয়েছে রাজশাহী। খুলনায় সুযোগ পেয়েছেন নাজমুল হাসান শান্ত ও আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। সাব্বির রহমান ও ইয়াসির আলী রাব্বিকে নিয়েছে কুমিল্লা।

আজ রাজধানীর এক হোটেলে অনুষ্ঠিত আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট। এরই মধ্যে ড্রাফটের দুই রাউন্ড শেষ। কিন্তু প্রথম দুই রাউন্ডের একটিতেও ডাক পাননি ‘এ’ প্লাস বিভাগে থাকা মাশরাফি বিন মুর্তজা। এই বিভাগে থাকা বাকি তিন ক্রিকেটার প্রথম দুই রাউন্ডেই বিক্রি হয়েছেন।

প্রথম রাউন্ডে মুশফিকুর রহিমকে দলে ভিড়িয়েছে প্রিমিয়ার ব্যাংক খুলনা টাইগার্স। ওপেনার তামিম ইকবালকে দলে নেয় ঢাকা প্লাটুন। এ ছাড়া চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে খেলবেন মাহমুদউল্লাহ আর সৌম্য সরকারকে নিয়েছে কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স, মুস্তাফিজুর রহমানকে নিয়েছে রংপুর রেঞ্জার্স, সিলেট দলে নিয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে, ডানহাতি ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে নিয়েছে রাজশাহী।

রাজধানীর একটি হোটেলে আসরের প্লেয়ার্স ড্রাফট শুরু হয় সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ‌এর উদ্বোধন করেন। এবারের বিপিএলে অংশ নেওয়া দলগুলো হচ্ছে- যমুনা ব্যাংক ঢাকা প্লাটুন, প্রিমিয়ার ব্যাংক খুলনা টাইগার্স, রাজশাহী রয়্যালস, রংপুর রেঞ্জার্স, সিলেট থান্ডার, কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স ও চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

বিপিএলের সব দলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন একজন করে বিসিবি পরিচালক। ঢাকা প্লাটুনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন গাজী গোলাম মুর্তজা, চট্টগ্রাম দলের সঙ্গে থাকবেন জালাল ইউনুস, রাজশাহীতে এনায়েত হোসেন সিরাজ, খুলনা টাইগার্সের সঙ্গে থাকবেন খালেদ মাহমুদ সুজন, কুমিল্লায় নাঈমুর রহমান দুর্জয়, রংপুরে আকরাম খান ও সিলেটের সঙ্গে থাকছেন তানজিল চৌধুরী।

দেশের ১৮১ ক্রিকেটার রয়েছেন বিপিএলের এবারের ড্রাফটে। এর মধ্যে শীর্ষ ক্যাটাগরি ‘এ প্লাসে’ স্থান পেয়েছেন মাত্র চারজন ক্রিকেটার। তাঁরা হলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল ও মাহমুদউল্লাহ।

খুলনা টাইগার্স :

মুশফিকুর রহিম, শফিউল ইসলাম, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, নাজমুল হোসেন শান্ত, রাইলি রুশো, রবি ফ্রাইলিংক, শামসুর রহমান, সাইফ হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, শহিদুল ইসলাম, মোহাম্মদ আমির, নাজিবুল্লাহ জাদরান, আলিস আল ইসলাম, তানভীর ইসলাম ও রহমতউল্লাহ গুরবাজ।

ঢাকা প্লাটুন :

তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয়, মাহেদী হাসান, হাসান মাহমুদ, থিসারা পেরেরা, লরি ইভান্স, আরিফুল হক, মুমিনুল হক, শুভাগত হোম, মাশরাফি বিন মুর্তজা, ওয়াহাব রিয়াজ, আসিফ আলি, রকিবুল হাসান, জাকের আলি অনিক, লুইস রিস ও শহীদ আফ্রিদি ।

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স :

মাহমুদউল্লাহ, ইমরুল কায়েস, নাসির হোসেন, রুবেল হোসেন, ক্রিস গেইল, কেসরিক উইলিয়ামস, নুরুল হাসান সোহান, মুক্তার আলি, পিনাক ঘোষ, আভিশকা ফার্নান্ডো, রায়াদ এমরিত, নাসুম আহমেদ, জুনাইদ সিদ্দিক, রায়ান বার্ল ও ইমাদ ওয়াসিম।

রাজশাহী রয়্যালস :

লিটন দাস, আফিফ হোসেন, ফরহাদ রেজা, আবু জায়েদ রাহী, রবি বোপারা,হজরতউল্লাহ জাজাই, তাইজুল ইসলাম, অলক কাপালি, কামরুল ইসলাম রাব্বি, ইরফান শুক্কুর, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ ইরফান, মিনহাজুল আবেদিন আফ্রিদি ও নাহিদুল ইসলাম।

রংপুর রেঞ্জার্স :

মুস্তাফিজুর রহমান, নাঈম শেখ, জহুরুল ইসলাম, আরাফাত সানি, মোহাম্মদ নবী, শেই হোপ, তাসকিন আহমেদ, জাকির হাসান, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, নাদিফ চৌধুরি, ক্যামেরন ডেলপোর্ট, লুইস গ্রেগরি ও সনজিত সাহা।

কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স :

সালাহকে দেখে ইসলাম কবুল করলেন মুসলিম বিদ্বেষী যুবক

সৌম্য সরকার, আল-আমিন হোসেন, সাব্বির রহমান, ইয়াসির আলী রাব্বি, কুশল পেরেরা , মুজিব-উর-রহমান, সানজামুল ইসলাম, আবু হায়দার রনি, মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন, সুমন খান, ডেভিড মালান, দাশুন শানাকা ও ফারদিন হাসান অনি।

সিলেট থান্ডার্স :

মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মোহাম্মদ মিঠুন, নাজমুল ইসলাম অপু, সোহাগ গাজী, শেরফেন রাদারফোর্ড, শফিকউল্লাহ শাফাক, রনি তালুকদার, নাঈম হাসান, দেলোয়ার হোসেন, মনির হোসেন খান, নাভিন উল হক, জনসন চার্লস, রুবেল মিয়া ও জীবন মেন্ডিস।