বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১
17.1 C
Habiganj

বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য হবিগঞ্জ পৌরসভাকে আদালতের নির্দেশ

অনতিলম্বে বিজ্ঞান সম্মত উপায়ে পরিবেশ বান্ধব বর্জ্য ব্যবস্থাপনার জন্য হবিগঞ্জ পৌরসভাকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত। হবিগঞ্জের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ও হবিগঞ্জের জাস্টিস অব দি পিস মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ এ আদেশ প্রদান করেন।

এছাড়াও অপর এক আদেশে পরিবেশ সংক্রান্ত অপরাধের জন্য গঠন করেন ‘পরিবেশ আদালত।’

আদালত সূত্র জানায়, হবিগঞ্জ শহরের বাইপাস সড়কে দীর্ঘদিন ধরে পৌরসভার ময়লা-আবর্জনা স্তুপ করে রাখায় চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে স্থানীয় পরিবেশ ও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন জনসাধারণ।

বিষয়টি হবিগঞ্জের চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ এর নজরে এলে গত ১১ নভেম্বর স্বপ্রণোদিত হয়ে তিনি এ সংক্রান্ত একটি আদেশ দেন।

আদালতের আদেশ থেকে জানা যায়, হবিগঞ্জ পৌরসভার বাইপাস সড়ক (হবিগঞ্জ-নছরতপুর সড়ক) এর পূর্ব পাশে দীর্ঘদিন ধরে স্তুপ করে রাখা হয়েছে ময়লা-আবর্জনা। এতে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে এবং পরিবেশ দূষণ হচ্ছে।

পাশাপাশি চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন পথচারী, পরিবহন যাত্রী, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী, ব্যবসায়ী ও আবাসিক এলাকার জনসাধারণ। দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন এ এলাকায় স্থাপিত জেলা দায়রা জজ আদালত ও চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারকগণ, আইনজীবিগণ এবং বিচারপ্রার্থীরা।

এছাড়াও জেলা আনসার ভিডিপি কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী, ঐতিহ্যবাহী বৃন্দাবন সরকারি কলেজ ও দি রোজেস কালেক্টরেট স্কুলের শিক্ষার্থী এবং হবিগঞ্জ আধুনিক স্টেডিয়ামের ক্রীড়ামোদী ও খেলোয়াড়েরা প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

শুধু তাই নয়, মাঝে মাঝে ময়লা-আবর্জনা আগুনের পোড়ানোর কারণে এর ক্ষতিকর প্রভাব অনেক দূর পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ছে। যা পরিবেশ সংরক্ষণ আইন ১৯৯৫ এর ধারা ৯ ও ১৫ (১) ধারার টেবিল ১০ অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

তাই, ১৮৯৮ সালের The Code of Criminal Procedure এর ২৫ ধারায় ‘জাস্টিস অব দি পিস’ (Justice of the Peace) এর ক্ষমতা বলে এবং নাগরিক অধিকার সংরক্ষণের প্রয়োজনে ‘‘অনতিবিলম্বে উপযুক্ত স্থান নির্ধারণ করে বিজ্ঞান সম্মত উপায়ে পরিবেশ বান্ধব বর্জ্য পরিশোধনাগার স্থাপনের জন্য হবিগঞ্জ পৌরসভাকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং এর অনুলিপি সংশ্লিষ্ট সকল দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে।

এদিকে, একই দিনে একই আদালত পৃথক আরেকটি অফিস আদেশে পরিবেশ সংক্রান্ত অপরাধের জন্য ‘পরিবেশ আদালত’ গঠন করেন। ওই আদেশে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্র্রেট পবন চন্দ্র বর্মনকে স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট এবং তার দায়িত্বপ্রাপ্ত আদালতকে নিয়মিত ‘স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত’ হিসেবে দায়িত্ব অর্পন করেন। আদেশ অনুযায়ী তিনি পরিবেশ আইনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবেন।

প্রসঙ্গত, পরিবেশ আদালত আইন ২০১০ এর ১২ (১১) ধারা মোতাবেক স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেটগণ CrPC, ১৮৯৮ এর আওতায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে ক্ষমতাবান।

আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের বিচার শাখা ৩ এর বিগত ১৯/০৩/২০০৮ইং তারিখের ১৮৯-বিচার-৩/২এম-১/২০০৮ নং প্রজ্ঞাপনে পরিবেশ সংক্রান্ত অপরাধের বিষয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য সুপ্রীমকোর্ট সম্মতি জ্ঞাপন করেছে।

প্রিয় পাঠক

আপনার আশেপাশের যে কোন সমস্যার কথা আমাদেরকে লিখে পাঠান। এলাকার সম্ভাবনার কথা, মাদক, দুর্নীতি, অনিয়ম আর সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্যসহ পাঠিয়ে দিন আমাদের ই-মেইলে। ই-মেইলঃ habiganjnews24@hotmail.com

95,640FansLike
1,432FollowersFollow
2,458FollowersFollow
2,145SubscribersSubscribe