বাঁচতে চায় এমসি কলেজের মেধাবী ছাত্রী

0
3

আশরাফ আহমেদ, এমসি কলেজ :: অনন্যা, সারাক্ষণ হাঁসিমাখা মুখের দ্বারা বন্ধুদেরকে মাতিয়ে রাখা একটি নাম। নম্র, ভদ্র, বিনয়ী হওয়ার কারণে প্রখর মেধাবসম্পন্ন অন্যন্যা দে আঁখি নামের মেয়েটি তাই শিক্ষকদের কাছেও প্রিয় একটি মুখ।

কিন্তু নিয়তীর কি করুণ পরিনতি। বন্ধুরা যখন এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নিতে লেখাপড়া নিয়ে ব্যস্ত, ক্যাম্পাস মাতিয়ে রাখা সেই অন্যন্যা এখন হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।

এমসি কলেজের ইন্টারমিডিয়েট ২য় বর্ষের ছাত্রী অনন্যা গত ২৪ জানুয়ারি কলেজে আসার সময় সিলেট বিমানবন্দর সড়কে দূর্ঘটনার শিকার হয়। এতে তার মাথাসহ শরীরের অনেক অংশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। ইতিমধ্যেই ডাক্তাররা তার ব্রেইন অপারেশন করেছেন। অনন্যার মৌলবীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার হাটবন্দ এলাকার অরুন কুমার দের মেয়ে।

বর্তমানে সে ঢাকার এপোলো হসপিটালে ভর্তি আছে। প্রথমে তাকে সিলেট ইবনে সিনা হাসপাতালে ভর্তি করালেও অবস্থার অবনতি দেখলে সেখান থেকে ঢাকা এপোলোতে নেওয়া হয়।

চিকিৎসকদের মতে অন্যন্যাকে পুরোপুরি সুস্থ করে তুলতে হলে আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ অপারেশন করাতে হবে। যাতে ব্যয় হবে প্রায় ২০ লক্ষ টাকা। কিন্তু তার পরিবারের পক্ষে এই পরিমাণ অর্থ খরচ করে চিকিৎসা করানো অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তাই এমসি কলেজ পরিবারের এই হাঁসিমাখা মুখটিকে আবারও স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার জন্য সকলের কাছে সাহায্য চেয়েছেন অনন্যার পরিবার। এমসি কলেজে বর্তমানে ১৪ হাজারেও বেশি শিক্ষার্থী লেখাপড়া করছেন। এছাড়াও এই কলেজে লেখাপড়া করে যাওয়া অনেক মুরারিয়ান এখন স্বাবলম্বী, যাদের একটুখানি সুদৃষ্টিতে বেঁচে যেতে পারে মেধাবী শিক্ষার্থী অনন্যা।

অনন্যাকে সাহায্য করতে অনন্যার ভাইয়ের 01734-530910 (বিকাশ) এই নাম্বারে যোগাযোগ করা যাবে।