মনোহরদীতে নদীতে ডুবে কলেজ ছাত্রের মৃত্যু

আমিনুল ইসলামঃ মনোহরদীতে মোঃ সোহেল মিয়া(২৩) নামের এক কলেজ ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। জানা যায় তিনি নরসিংদী জেলার মনোহরদী উপজেলার চরমান্দালিয়া ইউনিয়নের মজিদপুর পূর্বপাড়া গ্রামের বিশিষ্ট পোল্ট্রি বব্যসায়ী মোঃ কাদির মিয়ার বড় ছেলে।

তিনি ঢাকা কলেজের ভূগোল বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন।একই সাথে তিনি নরসিংদী জামিয়া কাসেমিয়া কামিল মাদরাসার ছাত্র ছিলেন।

গতকাল রবিবার দুপুরে কৃষ্ণপুুর ইউনিয়নের চরগোহালবাড়ীয়া গ্রামের পাশ দিয়ে বয়ে চলা ব্রহ্মপুএ নদীর বটতলা সৈয়দ মৌলভির বাড়ির নূরনগর ঘাটে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে গিয়ে হঠাৎ পানির নিচে ডুবে যায়।

বন্ধুদের কাছ থেকে জানা যায়, মোঃ সোহেল গোসল করা অবস্থায় দুপুর ১ টার দিকে হঠাৎ ডুবে যায়।আমরা তাকে প্রাণপণ খোঁজাখুোঁজি করেও পাইনি।আমরা দীর্ঘ সময় খোঁজতে থাকায় স্থানীয় লোকজন জড়ো হয়। ইতিমধ্যে সোহেল ডোবে যাওয়ার ঘটনা জানাজানি হয়ে যায় আসপাশের এলাকায়। পরে এলাকাবাসী তার বাড়িতে খবর জানায়।

এলাকাবাসীরা খুঁজে না পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কে খরব দেন। ফায়ার সার্ভিস ঘটনা স্থলে এসে সোহেলকে খুঁজে বের করার চেস্টা করে কিন্তু সোহেলকে খোঁজে পাওয়া যায় নি।অবশেষে আজ সোমবার আড়িয়াল খাঁ নদীতে ভেষে ওঠে সোহেলের লাশ।

পুলিশ তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হয়।বিকাল ৩.৩০ মিনিটে জানাযা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। জানাযা পূর্ব মজলিসে তার বাবা মোঃ আব্দুল কাদির তার পুত্রের পক্ষ হয়ে সোহেলের শিক্ষক-ক্লাসমেট, আত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুদের কাছে ক্ষমা ও দোয়া পার্থনা করেন। পরে পারিবারিক গোরস্থানে সোহেলকে কবরস্থ করা হয়।