শায়েস্তাগঞ্জে ৮ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণ হচ্ছে ৬ তলা বিশিষ্ট আধুনিক থানা ভবন

Shaistagonj-Thana

সৈয়দ আখলাক উদ্দিন মনসুর :-  হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জ থানা ২০০১ সালে স্থাপিত হলেও দাপ্তরিক কার্যক্রম দীর্ঘদিন যাবত ভাড়া করা অফিসে চলেছে। অবশেষে সরকারের ‘১০১ জরাজীর্ণ থানা ভবন উন্নয়ন প্রকল্পের’ আওতায় নির্মাণ হচ্ছে ছয় তলা বিশিষ্ট আধুনিক থানা ভবন।

এতে ব্যয় হবে ৮ কোটি ১০ লক্ষ ৯ হাজার ৭১০ টাকা। তবে এখন চার তলা ভবন সম্পন্ন হবে বলে জানালেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বড়চর মৌজার ১ একর ৫৭ শতক জায়গায় চলছে নির্মাণ কাজ। পাশে রয়েছে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক ও শায়েস্তাগঞ্জ-অলিপুর আঞ্চলিক সড়ক।

জানা যায়, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মেসার্স মোস্তাফা কামাল নামের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে থানা ভবন নিমার্ণ কাজ শুরু করে বর্তমানে ৭০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে এবং পুলিশ সুপার কার্যালয়ের টেন্ডারের মাধ্যমে আব্দুল আজিজ নামে নামে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান থানার প্রধান ফটকের কাজ শেষ করেছে। মেসার্স মোস্তাফা কামাল প্রতিষ্ঠানের পার্টনার নুরুজ্জামান জানান, গণপূর্ত অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে ছয় তলা বিশিষ্ট থানা ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ করতে খরচ হবে ৮ কোটি ১০ লক্ষ ৯ হাজার ৭১০ টাকা। তবে সরকার থেকে বর্তমানে চার তলা পর্যন্ত সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে।

এতে চুক্তি মূল্য ধরা হয়েছে ৭ কোটি ২৮ লক্ষ ৭৪ হাজার ৮১৫ টাকা। ইতিমধ্যে ৭০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। নির্মাণ কাজ শেষ করতে ১৪ মাস মেয়াদ দেওয়া থাকলেও বর্তমানে কাজের সময়সীমা বর্ধিতকরণ করা হয়েছে। আশা রাখি আগামী জুন মাসের মধ্যে বাকী কাজ শেষ করা হবে। শায়েস্তাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাম্মেল হোসেন এ প্রতিনিধিকে বলেন, দেশের ১০১ টি উপজেলায় নতুন থানা ভবনের নির্মাণের জন্য সরকার বরাদ্দ দিয়েছে। এরই সাথে শায়েস্তাগঞ্জ থানাও আধুনিক ভবনের নির্মাণ কাজ চলছে।

আগামী জুনের মধ্যে থানা ভবনের নির্মাণ কাজ শেষ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মাধ্যমে উদ্বোধন করা হবে। ওসি বলেন, আধুনিক ভবনে ৫৩টি কক্ষ রয়েছে। তন্মধ্যে নিচতলায় অফিসারদের কক্ষ, দ্বিতীয় তলায় হাজতখানা (পুরুষ-মহিলা আলাদা), ডাইনিং রুম, তৃতীয় ও চতুর্থ তলায় পুলিশ ব্যারাকের ব্যবস্থা করা হবে।