শায়েস্তাগঞ্জে মাদকাসক্ত স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে মাদকাসক্ত ও নেশাগ্রস্থ স্বামী, তার স্ত্রী মুক্তিরাণী দাসকে (৪০) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করেছে। তারা উপজেলার পুর্ববড়চর গ্রামের বাসিন্দা।

সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হপাসাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

শায়েস্তাগঞ্জ থানার (ওসি) আনিছুজ্জামান বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত মুক্তিরাণী দাস প্রাণ আরএফএল কোম্পানীর কর্মী। সে তার স্বামী কিশোর দাসসহ উপজেলার অলিপুর এলাকায় বসবাস করতো।

সম্প্রতি তাদের মধ্যে পারিবারিক কিছু বিষয় নিয়ে কলহের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে ওই দিন তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। এর এক পর্যায়ে স্বামী কিশোর দাস তার স্ত্রীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে উপর্যপূরি কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে।

লোকজন তাৎক্ষণিক তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কতর্ব্যরত চিকিৎসক তাকে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হপাসাতালে প্রেরণ করেন। ওই দিন রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হপাসাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে ওসি আনিছুজ্জামান আরও জানান, নিহত মুক্তা রানী দাসের পরিবারের দাবী তার স্বামী নেশাগ্রস্থ ছিল। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। পুলিশ তাকে আটক করতে অভিযান চালাচ্ছে।