হবিগঞ্জের রিচিতে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ৪০

সংঘর্ষ

সদর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জে রাস্তায় ধান রাখাকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। গুরুত্বর আহত অবস্থায় অন্তত ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

বুধবার (১৫ মে) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ঘন্টাব্যাপী এ ঘংঘর্ষ চলে। খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, হবিগঞ্জ সদর উপজেলার রিচি ইউনিয়নের কালনী নোয়াবাদ গ্রামের মলাই মিয়া (৬০) গ্রামের রাস্তায় কিছু কাটা ধান রাখেন। বুধবার বেলা ১১টার দিকে এই গ্রামের স্বপন মিয়া (২৮) ও কামরুল মিয়াসহ (৩০) চারজন ধান ভাঙানোর মেশিন নিয়ে রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। এ সময় রাস্তায় ধান রাখার কারণে মেশিন নিতে অসুবিধা হওয়ায় স্বপ্ন ও কামরুল প্রতিবাদ করে। এ নিয়ে মলাই মিয়ার সাথে তাদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের লোকজন দেশিয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এতে নারীসহ অন্তত ৪০ জন আহত হন।

খবর পেয়ে হবিগঞ্জ সদর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।
পরে গুরুত্বর আহত অবস্থায় মলাই মিয়া (৬০), স্বপন মিয়া (২৮), সোহেল মিয়া (৩৫), মিলান বেগম (৪০), মোস্তফা আলী (১৫), ছানু মিয়া (৩০), গুণি মিয়া (৬০), কামরুল মিয়া (৩০), আল আমীন (১৮), উজ্জ্বল মিয়া (১৭), সামছু মিয়া (৩০), ফুল্লাস বেগম (৩০), হায়দার আলীসহ (৩৬) অন্তত ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

বানিয়াচঙ্গে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৫০

হবিগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুর রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়া পূণরায় সংঘর্ষ এড়াতে পুলিশ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।