হবিগঞ্জ-৪ আসনে ধানের শীষ নিয়ে ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী মাঠে

মাধবপুর (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি :
হবিগঞ্জ-৪ (মাধবপুর-চুনারুঘাট) আসনে ২০ দলীয় জোটের শরিক খেলাফত মজলিশের মহাসচিব ড. অধ্যাপক আহম্মেদ আঃ কাদির প্রতীক পাওয়ার পর নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছেন।

সোমবার কয়েকশতাধিক সমর্থক নিয়ে তিনি মাধবপুর উপজেলা শহরে মিছিল করেন।

এ আসনে ১৯৯১ সাল থেকে জেলা বিএনপির সভাপতি সৈয়দ মোঃ ফয়সল বিএনপির প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করে ৩ বার পরাজিত হয়েছেন। এবার নেতাকর্মীরা আশা করেছিল সৈয়দ মোঃ ফয়সল বিএনপির মনোনয়ন পাবেন।

কিন্তু তিনি বিএনপির মনোনয়ন না পাওয়ায় সৈয়দ মোঃ ফয়সলের সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিলেও বিএনপির বড় একটি অংশ ২০ দলীয় জোট প্রার্থী খেলাফত মজলিশের মহাসচিব ড. অধ্যাপক আহম্মেদ আঃ কাদিরকে নিয়ে মাঠে রয়েছেন।

তাদের মধ্যে রয়েছে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেত্রী শাম্মি আক্তার, খালেদা জিয়ার আইনজীবী এড. আমিনুল ইসলাম, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী। এছাড়া জামায়াত নেতাকর্মী সহ বিপুল সংখ্যক আলেম উলামা আব্দুল কাদির এর সঙ্গে প্রচারণায় যুক্ত রয়েছেন।

সৈয়দ মোঃ ফয়সল এবার বিএনপি থেকে মনোনয়ন না পাওয়ার কারণ হচ্ছে ২০০৮ সালের ২৯শে ডিসেম্বর নির্বাচনে পরাজিত হওয়ার পর রাজনীতি থেকে একেবারে নিস্ক্রিয় হয়ে পড়েন।

জেলা বিএনপির সভাপতি হলেও তা ছিল কাগজে কলমে। ২০০৮ সালে বিএনপির মনোনয়ন না পাওয়ায় সৈয়দ মোঃ ফয়সল আম মার্কা নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে দলের বিদ্রোহী হয়েছিলেন। এরপর থেকেই তিনি রাজনীতি থেকে নিস্ত্রিয় হয়ে পড়েন। বিগত সময়ে কোন সভা মিছিলে তার কোন উপস্থিতি ছিল না।

মাধবপুর নির্বাচনী প্রচারণা সভায় ড. অধ্যাপক আহম্মেদ আঃ কাদির বলেন, বিগত সময়ে মাধবপুরে রাস্তা ঘাটের কোন উন্নয়ন হয়নি। তিনি নির্বাচিত হলে মাধবপুর ও চুনারুঘাট রাস্তা, শিক্ষা সহ সাধারণ মানুষের উন্নয়নে তিনি কাজ করার প্রতিশ্রুতি দেন।