১০ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
দুপুর ২:০৬

জনপ্রিয় ৫ সংবাদ

আরো কিছু সংবাদ

এক গ্রামে সপ্তাহের ব্যবধানে তিনটি ডাকাতি

এক সপ্তাহের ব্যবধানে এক গ্রামে তিন ডাকাতির ঘটনা ঘটায় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

 

হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার ২নং চৌমুহন ইউপির সীমান্তবর্তী গ্রাম কমলপুরে ঘটেই চলছে ওইসব ঘটনা।

আজ শুক্রবার রাতে(১ ডিসেম্বর) ওই গ্রামের মৃত ইউসুফ আলীর ছেলে রুবেল মিয়ার মুদির দোকানের সার্টার ভেঙে নগদ টাকাসহ দোকানের লক্ষাধিক টাকার মালামাল ডাকাতি ঘটনা ঘটেছে।

পার্শ্ববর্তী হযরত শাহজালাল আলিম মাদ্রাসার থেকে মুখ করে থাকা সিসিটিপির ফুটেছে উঠে এসেছে ডাকাতদের মহড়ার কিছু দুর্লভ ভিডিও।ওইসব ছবি স্থানীয় গোয়েন্দা বিভাগকে প্রেরণ করা হয়েছে।

একই রাতে ওই গ্রামের মোর্শেদ মিয়া নামের এক ব্যবসায়ীর দোকানেও তালা কেটে মালামাল ও নগদ টাকা ডাকাতি হয়।

 

 

এর কয়েকদিন আগে স্থানীয় বাসিন্দা মৃত আব্বাস আলীর পুত্র রফু মিয়ার বাড়িতে ৬টি গরু চুরির ঘটনা ঘটে। ওই সময় এলাকাবাসীর ডাকাডাকিতে কিছু গরু ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায় ডাকাত দল।

 

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুস শহীদ জানান, একের পর এক চুরি-ডাকাতির ঘটনায় জনগণ বেশ আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের আইনশৃঙ্খলা মিটিংয়ে বরাবার এ বিষয়গুলো উত্থাপন করে আসছি করে আসছি।

 

পাখি প্রেমিক সোসাইটির আহ্বায়ক মুজাহিদ মসি বলেন, কমলপুরে সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় মাদক সেবনকারীরা নেশার টাকা যোগাতে ও বহিরাগত মোটরসাইকেল পার্টি ও প্রশাসনের তদারকির অভাবে অভাবে একের পর এক চুরি-ডাকাতির ঘটনা ঘটছে।তিনি দ্রুত এসবের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনারও আহবান জানান।