হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রস্তুত করে বিতরণ করলেন বৃন্দাবন কলেজের ড. সুভাষ দেব ও ফখরুদ্দিন খান

সম্প্রতি সারাবিশ্বে করোনা প্রাদুর্ভাব এর মূল কারণ হল জীবানু। আর করোনার ভাইরাস হাত-পায়ের জীবানুর সাথে সহজে মিশে মানব দেহে প্রবেশ করতে পারে।

তাছাড়াও করোনা থেকে রক্ষা পেতে বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা বার বার হাত পরিষ্কার রাখার কথা বলছে। আর হাতের জীবানু থেকে বাঁচতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা হয়।

দেশে ইতিমধ্যে বিভিন্ন জায়গায় স্যানিটাইজার বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হলেও স্বল্পতার কারণে তা পৌঁছে নি সবার হাতে।

এমনই এক পরিস্থিতিতে বৃন্দাবন সরকারি কলেজ, হবিগঞ্জ এর উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. সুভাষ চন্দ্র দেব হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরীর উদ্যোগ নেন। স্যানিটাইজার তৈরী করতে ড. সুভাষ চন্দ্র দেবকে সহযোগিতা করেন একই বিভাগের প্রভাষক জনাব, আ. ব. ম. ফকরুদ্দিন খান পারভেজ ও উনার ছাত্র কে. এম. আবু বকর।

ড. সুভাষ দেব এর সাথে কে. এ. আবু বকর

স্যানিটাইজার প্রস্তুত হওয়ার পর বোতলজাত করা হয়।প্রতিটি বোতল ১০০ ml ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন।

ড. সুভাষ দের সাথে ফখরুদ্দিন খান (ডান দিকে) ও কে. এম. আবু বকর (বাম দিকে)

দুপুর ০৩ টার দিকে উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজে অত্র কলেজের বিদায়ী প্রিন্সিপ্যাল জনাব, অধ্যাপক এলিয়াছ হোসেন স্যানিটাইজার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্ভোদন করেন।

শুভ উদ্ভোদন করছেন মাননীয় অধ্যক্ষ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজ, হবিগঞ্জ

এ সময় উপস্থিত ছিলেন অত্র কলেজের শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক জনাব, ইলিয়াস জালাল, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জনাব, আব্দুল হাকিম সহ অত্র কলেজের আরও বেশ কয়েকজন শিক্ষক/শিক্ষিকা।

ড. সুভাষ চন্দ্র দেব

প্রাথমিকভাবে অত্র কলেজের শিক্ষকবৃন্দের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সম্পূর্ণ বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়। এছাড়াও কলেজের বেশ কয়েকজন স্টাফ ও ছাত্র/ছাত্রীদেরও বিনামূল্যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে কলেজের অন্যান্য স্টাফ, ছাত্র/ছাত্রী ও সর্বসাধারণের মাঝে বিতরণ করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানা যায়।

এমন মহৎ উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন অনেকেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও ব্যাপক প্রশংশিত হন তারা।

নিচে কয়েকটি ফেইসবুক কমেন্টস তুলে ধরা হল –

০১. ” বৈশ্বিক এ দুর্যোগ মোকাবেলায় বৃন্দাবন সরকারি কলেজ, হবিগঞ্জের উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের এ উদ্যোগ সফল হউক। ড. সুভাষ দেব ও জনাব ফখরুদ্দিনকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন। ”

কমেন্টটি করেছেন উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান জনাব, আবু আহমদ আহসান কবির।

০২. Subash Deb sir ও Fokoruddin Khan Parvej sir কে অনেক ধন্যবাদ । উপস্থিত ধাকতে পারলে আরো ভাল লাগতো।

কমেন্টটি করেছেন উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের প্রভাষক জনাব, মোসলেম উদ্দিন।

০৩. ধন্যবাদ । সময় উপযোগী পদক্ষেপ । আরও ভালো লাগলো শ্রদ্ধেয় অধ্যক্ষ স্যার শেষ মূহুর্তে ও জাতির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন । স্যারের প্রতি রইল আমার কৃতজ্ঞতা ও শ্রদ্ধা ।

কমেন্টটি করেছেন প্রানিবিদ্যা বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের বিভাগীয় প্রধান জনাব, নজরুল ইসলাম ভূইয়া।

০৪. আলহামদুলিল্লাহ। সারা দেশের সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগ যখন স্যানিটাইজার বানাচ্ছিল তখন কিছুটা হলেও বিব্রতবোধ করছিলাম।যাক অবশেষে আমাদের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগ ইজ্জত রক্ষা করেছে। অভিনন্দন ড. সুভাষ স্যার ও পারভেজকে।

কমেন্টটি করেছেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সহকারী অধ্যাপক জনাব, মোঃ আবু সিদ্দিকী।

এছাড়াও ড. সুভাষ চন্দ্র দেব ও জনাব ফকরুদ্দিন খান স্যারের ছাত্র কে. এম. আবু বকর ফেইসবুকে একটি পোস্ট করেছেন। পোস্টটি হুবুহু তুলে ধরা হল –

” উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগ, বৃন্দাবন সরকারি কলেজের সম্মানিত সহকারী অধ্যাপক, ড. সুভাষ চন্দ্র দেব ও প্রভাষক, আ. ব. ম. ফকরুদ্দিন খান (পারভেজ) স্যারের যৌথ উদ্যোগে আমাদের সুরক্ষার জন্য সীমিত সংখ্যক হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে আজ বিতরণ করা হয়েছে।

অত্র কলেজের বিদায়ী অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ এলিয়াছ হোসেন স্যার বিতরণ কার্যক্রমের উদ্ভোদন করেন।

আমি অধম এই মহৎ উদ্যোগে সহযোগিতা করতে বিভাগে উপস্থিত হয়েছিলাম।

ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি ড.সুভাষ চন্দ্র দেব স্যার ও আ. ব. ম. ফখরুদ্দিন খান (পারভেজ) স্যারের প্রতি। ”