সরকারি নিষেধ অমান্য করে হবিগঞ্জে কিস্তি আদায় করছে এন.জি.ও প্রতিষ্ঠানগুলো

হবিগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থা নামে একটি এনজিও তাদের কার্যক্রম পুরোদমে চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানা গেছে । গ্রামের খেটে খাওয়া মানুষদের কাছ থেকে কিস্তি আদায়ে ব্যস্ত রয়েছে তারা ।

মঙ্গলবার(২৪মার্চ) হবিগঞ্জ সদর উপজেলার পইল গ্রামের নাজিরপুর এলাকায় দেখা গেছে হবিগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থার এক সদস্য মাটিতে বসে কিস্তি আদায় করছেন ।

সারাবিশ্বে করোনা ভাইরাস নিয়ে যে ভয়াবহতার স্বীকার হচ্ছে, তার পরিপেক্ষিতে বাংলাদেশেও জোরদার করা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার ।

কিন্তু বেশ কিছু এনজিও কর্মীরা মুখে সামান্য মাস্ক নিয়ে হাতে হেন্ড গ্লাভস না পড়েই কিস্তি আদায় করছেন।
ইতিমধ্যে সকল এনজিও কিস্তি মওকুফ করা এবং ঋণ খেলাপি যেন না হয় সেই দিকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে । সেই বিষয়টি অনেকেই মানছেন না ।

হবিগঞ্জ উন্নয়ন সংস্থা,আশা,গ্রামীন ব্যাংক সহ অনেক ঋণ দানকারী প্রতিষ্ঠান পাড়া মহল্লায় গিয়ে ঋণ কিস্তি সংগ্রহ করছেন বলে গ্রাম্বাসীরা অভিযোগ জানিয়েছেন । এই নিয়ে জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে বলেও জানা যায় । স্থানীয় লোকেরা জানান, আমরা নিম্ন আয়ের মানুষ দিনে এনে দিন খাই । আমাদের কাজ বন্ধ তাহলে কি করে আমরা ঋণ কিস্তি পরিশোধ করবো । এছাড়াও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ তো কিস্তি নেওয়া মাঠ অফিসারেরও থাকতে পারে । টাকার মাধ্যমেও ছড়াতে পারে এই করোনা ভাইরাস ।

এই ব্যাপারে ঋণ গ্রহীতা মাঠ অফিসারের কাছে জানতে চাইলে উনি বলেন আমাদের ঐরকম কোন নির্দেশনা দেয়া হয়নি ।

তবে ইতিমধ্যেই আমাদের কার্যক্রম বন্ধ হবে বলে ওই সদস্য নিশ্চিত করেছেন বলে জানিয়েছেন ।