হবিগঞ্জে করোনায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন আরও ১০ জন

হবিগঞ্জে করোনা জয় করে ফলের ঝুড়ি ও নগদ টাকা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ জন । গতকাল সোমবার দুপুর ১টার দিকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে তাদেরকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিদায় জানানো হয়েছে ।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের প্রত্যেককে ফলের ঝুড়ি ও নগদ ৫ হাজার করে টাকা প্রদান করা হয়।

জেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, আজকের ছাড়পত্রপ্রাপ্ত ১০ জনের রিপোর্ট রোববার রাতে পুনরায় নেগটিভ এলে সোমবার দুপুরে তাদেরকে আনুষ্ঠানিকভাবে হাসপাতাল থেকে বিদায় দেয়া হয় । এর আগে ১ জনকে সুস্থ্য ঘোষণা করে বাড়ীতে পাঠানো হয় । এ নিয়ে জেলায় ১১ জন সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরেছেন ।

তারা হচ্ছেন বানিয়াচং উপজেলার ইকরাম গ্রামের অপু দাস, যাত্রাপাশা মীর মহল্লার উজ্জ্বল মিয়া ও আক্কাস আলী, ইকরাম নোয়াবাদ গ্রামের অধির দাস, যাত্রাপাশা বানেশ্বর পাড়ার সুমন মিয়া, বাহুবলের দক্ষিণ দৌলতপুরের অলি মিয়া, লাখাইয়ের বাবুল মিয়া, চুনারুঘাটের আব্দুল মালেক, আজমিরীগঞ্জের বিরাট গ্রামের জালাল মিয়া, নারায়নগঞ্জের নোয়াঘটি এলাকার সুমন হাওলাদার ।

করোনা জয়ী প্রত্যেককে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সিনিয়র সহকারী কমিশনার মাসুদ রানা নগদ ৫ হাজার টাকা ও বিভিন্ন ধরনের ফল ভর্তি একটি করে ঝুড়ি তাদের হাতে তুলে দেন । এছাড়াও তাদেরকে বাড়িতে গিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শও দেন ।

এসময় জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে সিনিয়র সহকারী কমিশনার মাসুদ রানা, এনডিসি প্রতীক মন্ডল, সদর হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. আশরাফ উদ্দিন, আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শামীম আরা ও ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মুখলেছুর রহমান উজ্জ্বল উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী হবিগঞ্জ জেলায় এ পর্যন্ত ১ শ’ ১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন । এর মাঝে সুস্থ হয়েছেন ১১ জন, মারা গেছে এক শিশু। আক্রান্তদের মধ্যে জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, ম্যাজিস্ট্রেট, চিকিৎসক, ওসি, পুলিশ সদস্য, নার্সসহ বেশ কয়েকজন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারি রয়েছেন। এদের মধ্যে মৃত্যুবরণ করেছে এক শিশু।