হবিগঞ্জে ভার্চুয়াল কোর্টে প্রথম জামিন শুনানী

হবিগঞ্জে ভার্চুয়াল কোর্টে প্রথম জামিন শুনানী হয়েছে আজ। প্রথম দিনে দুটি কোর্টে ৩৬টি মামলার জামিন শুনানী হয়েছে। এর মধ্যে ২৬টি মামলায় ৪৮ জন আসামীর জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। সর্বোচ্চ সংখ্যক জামিন শুনানী হয়েছে জেলা ও দায়রা জজ আদালতে।

জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আমজাদ হোসেন ভার্চুয়াল কোর্টে ৩০টি মামলার জামিন শুনানী গ্রহণ করেন। এর মধ্যে ২০টি মামলায় ৪২জন আসামীর জামিন মঞ্জুর করেন।

অন্যদিকে হবিগঞ্জের চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট তানিয়া কামাল ভার্চুয়াল কোর্টে ৬টি মামলার জামিন শুনানী করেন। ৬টি মামলায় ৬ জন আসামীর জামিন
মঞ্জুর করেন তিনি। জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বেঞ্চ সহকারী ফাহিমা খানম জানান- ৩০টি মামলা শুনানী করে ২০টি মামলার জামিন প্রার্থী আসামীদের জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে।

ইমেইলের মাধ্যমে জামিন প্রাপ্ত আসামীদের জামিন মঞ্জুরের আদেশ কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের নাজির শাকিল আহমেদ জানান-৬টি মামলায় ৬জনের জামিন আবেদন শুনানী করে তাদেরকে জামিন প্রদান করা হয়েছে।

আসামীদের জামিননামা ইমেইলে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। নতুন করে বেশ কিছু আবেদন জমা হয়েছে। সেগুলোর জামিন শুনানী গ্রহনের জন্য সময় নির্ধারণ করা হবে। এদিকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের ৩টি কোর্টের একটিতেও কোনো জামিন আবেদন শুনানী হয়নি।

এদিকে হবিগঞ্জ কারাগারের জেলার জয়নাল আবেদিন ভূইয়া জানান- বুধবার পর্যন্ত হবিগঞ্জ কারাগারে বন্দীর সংখ্যা ১ হাজার ১০৫জন। ভার্চুয়াল কোর্টের জামিন নামা প্রেরণ করা হয়েছে শুনেছি। জামিন নামা পেলেই নিয়ম অনুযায়ী আসামীদের মুক্তি দেয়া হবে।