বরুণা মাদরাসা ও আল খলীলের কুরবানীর গোশত বিতরণ।

মিসবাহ উদ্দিন জুবায়েরঃ বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপিঠ বরুণা মাদরাসা শ্রীমঙ্গল ও আল খলীল এডুকেশন অ্যান্ড কালচারাল সেন্টার ইউকের উদ্যোগে বরাবরের মতো এবারও দেশের বিভিন্ন জায়গায় ১৫০ টিরও অধিক গরু কুরবানীর মাধ্যমে সহস্রাধিক মানুষের মানুষের মাঝে গোশত বিতরণ করা হয়।

বরুণা মাদরাসার স্বনামধন্য প্রিন্সিপাল ও আল খলীল এডুকেশন অ্যান্ড কালচারাল সেন্টার ইউকের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাওলানা শেখ বদরুল আলম হামিদীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় এবং কুরবানী ২০২০ প্রজেক্ট বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি বরুণা মাদরাসার নায়বে ছদরে মুহতামিম হাফিজ মাওলানা ওলিউর রাহমান বর্ণভীর দিক নির্দেশনায় ঈদুল আজহার দিন এবং পরের দিন দেশের ৭০টি স্পটে টি গরু কুরবানী দেয়া হয়।

বিভিন্ন স্পটসমূহে কুরবানী সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন এবং গোশত বিতরণ কার্যক্রম তদারকির দায়িত্বে ছিলেন বরুণা মাদরাসার শিক্ষা সচিব মাওলানা রশিদ আহমদ হামিদী, সহকারী শিক্ষা সচিব মাওলানা সাইফুর রহমান, সহকারী শিক্ষা সচিব মাওলানা শফিউল আলম,মুফতি জহির উদ্দিন ক্বাসেমি,মাওলানা আবদুল গফুর কবীর,মাওলানা মনজুর আশরাফী,হাফিজ মাওলানা মিসবাহ উদ্দিন জুবায়ের,মাওলানা আদনান আলম হামিদী,মাওলানা আতহার জাকওয়ান,হাফিজ মাওলানা, হাফিজ মাওলানা দিলওয়ার হোসাইন,মাওলানা মোসলেহ উদ্দিন চৌধুরী,হাফিজ মাওলানা উবায়দুল হক,মাওলানা হাবিবুল মুরসালিন প্রমুখ।

দেশের বর্তমান ক্রান্তিকালেও বরুণা মাদরাসা তার ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতার ব্যত্যয় ঘটায়নি। বিগত বছরগুলোর ন্যায় এবারও সমাজের অনাথ, দুঃস্থ ও ছিন্নমূল মানুষের পাশে কুরবানীর গোশত বিতরণের ধরাবাহিকা অব্যাহত রেখেছে। আগামীতে যেনো বরুণা মাদরাসা ও আল খলীল দেশের তৃণমূল পর্যায়ে এই সেবা পৌঁছে দিতে পারে এব্যাপারে দেশ-বিদেশের সর্বস্তরের তাওহীদি জনতার আন্তরিক দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেছেন প্রতিষ্ঠানের মুহতারাম প্রিন্সিপাল
আলহাজ্ব মাওলানা শেখ বদরুল আলম হামিদী হাফিজাহুল্লাহ।

উল্লেখ্য যে, প্রতিছরের ন্যায় এবারও আফ্রিকার অসহায় অর্ধসহস্র মানুষের মাঝে কুরবানির গোশত বিতরণ করা হয়।