সদর উপজেলায় পুকুর থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

সদর উপজেলায় পুকুর থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার এড়ালিয়ার পুকুর থেকে অনুফা আক্তার (১৮) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার স্বামী, শাশুড়ি ও জা’কে আটক করা হয়েছে। নিহত ওই কিশোরী হনুফা আক্তার (১৫) পশ্চিম এড়ালিয়া গ্রামের বাসিন্দা সওদাগর মিয়ার মেয়ে।

পুলিশ ‍সূত্রে জানাযায়, বৃহস্পতিবার ভোরে মুসল্লিরা মসজিদে নামাজ পড়তে যান। এ সময় তারা মসজিদের পুকুরে একটি মৃতদেহ ভাসতে দেখেন। তারা বিষয়টি সদর থানায় অবহিত করলে ঘটনাস্থলে ছুটে যান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রবিউল ইসলাম ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মাসুক আলী।

পুলিশ গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

সদর উপজেলায় পুকুর থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

ওসি মাসুক আলীর নেতৃত্ব একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে প্রেরন করে। এবং জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী বিলাল মিয়া (১৮), শাশুড়ি আব্দুল হাসিমের স্ত্রী চান্দি বেগম (৪৫), জা রাজু মিয়ার স্ত্রী খোদেজা বেগমকে (১৬) আটক করা হয়।

স্থানীয়রা জানাযায়, অনুফা আক্তার ও তার স্বামী বিলাল মিয়া চাচাতো ভাই-বোন। তারা প্রায় ৭ মাস আগে পালিয়ে বিয়ে করে।

বানিয়াচংয়ে কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ

এ বিষয়ে ওসি মাসুক আলী জানান, “মৃতদেহে আঘাতের দাগ রয়েছে। কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ছাড়া কিছু বলা যাচ্ছে না।”